শিব লিঙ্গ পূজা বলতে আসলে কি?

Shivling

হিন্দুগণ শিবের পূজা করে থাকে।শিবের আরাধনা জন্য শিব লিঙ্গের প্রয়োজন হয়।আসলে এই শিব লিঙ্গ কি?  শিব লিঙ্গ হল ভগবান শিবের আরাধনার করার জন্য একটি পাথরকে একটি বিশেষ আকারে রূপান্তরিত করা হয় শিবের আরাধনার জন্য। যেটি শিবের প্রতিক হিসাবে পরিচিত।শিবের ভক্তদের শৈব বলা হয়।

দেবতাদের মূর্তি পূজা কেন করা হয়?

বর্তমানে বহুল তর্ক বির্তরিক একটি প্রশ্ন মূর্তি পূজা নিয়ে।কেনো এই মূর্তিপূজা? একদিন একজন শীর্ষ তার ঈশ্বরের নিকট এরূপ প্রশ্ন করলে ঈশ্বর বলে এই জগৎ যাহা চোখের সামনে দেখে তাহাকে বিশ্বাস করে।এই পৃথিবীতে দুই ধরনের মানুষ রয়েছে।এক যিনি ঈশ্বরের সাকার রূপে বিশ্বাসী, অন্য এক নিরাকার রূপে।আমাকে যারা সাকার অথাৎ মূর্তিরূপে পূজা আরাধনা করে তাদের কাছেও আমি যেমন, যারা আমাকে না দেখে বিশ্বাস করে তার কাছেও আমি একই। এই বিশ্বে যদি নিরাকারই থাকে তবে একসময় ঈশ্বরের অস্তিত্ব কেউ আর বিশ্বাস করবে না।এই জন্য আমি যুগে যুগে অবতার রূপে পৃথিবীতে অবতীর্ণ হই।

শিব বড় না কৃষ্ণ?

আমরা উভয়কেই ঈশ্বর রূপে জানি। তারা দুজনই সমান।যিনি দুজনকে অভিন্ন করে দেখেন তিনি ঈশ্বরের মাহাত্ম্য অনুভব করতে পারেনা।কৃষ্ণ বিষ্ণুর একটি অবতার।বিষ্ণুর মাঝেই তো সকল দেবতাকে পাওয়া যায়।তাহলে কে বড় আর কেই বা ছোট?  যে যেভাবে পূজা করে ঈশ্বর তাকে সেভাবেই লালন পালন করে।

সাকার বা নিরাকার কোন রূপে পূজা করা ভালো?

ঈশ্বরকে যিনি উপলব্ধি করতে পারে সেই একমাত্র নিরাকার উপাসনা করতে পারে।সাকার উপাসনা কিংবা নিরাকার আমাদের মনে রাখতে হবে ঈশ্বর আমাদের।আমরা যেভাবেই আরাধনা করি আমরা সেভাবেই ঈশ্বরকে পেতে পারি।

No comments

Powered by Blogger.